ব্লগিং কি? কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়?

ব্লগিং কি? কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়? 

ব্লগিং কি? সংক্ষিপ্ত কথায় বলতে গেলে অনলাইনে কোন কিছু পোস্ট করা বা অনলাইনে কোনোকিছু কে ধারাবাহিক ভাবে লিপিবদ্ধ করাকেই ব্লগিং(Blogging) বলে। বলা যায় মানুষ যে রকম প্রতিদিন ডাইরি লিখে ঠিক সে রকম ভাবে লেখা। তবে এর মধ্যে পার্থক্যটা হচ্ছে ডাইরি লিখা হয় ডাইরি তে কলম দিয়ে, আর ব্লগিং(Blogging) এর উদ্দেশ্য লিখা হয় ওয়েব সাইটে।


প্রিয় পাঠক আরো বিস্তারিত জানতে আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন। সম্পূর্ণ আর্টিকেলটিতে যে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হবে সেগুলো একনজরে দেখা যাক-




  1. ব্লগিং কি?
  2. কেন আপনি ব্লগিং(Blogging) করবেন?
  3. কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়?
  4. ব্লগিং শুরু করার পরিকল্পনা,
  5. ব্লগিং শুরু করার জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করা,
  6. কিভাবে মানসম্মত আর্টিকেল লিখতে হবে,
  7. কিভাবে আর্টিকেল ওয়ার্ডপ্রেসের পোস্ট করতে হবে,
  8. গুগল এডসেন্স এর  জন্য কি কি শর্ত রয়েছে,
  9. কিভাবে ওয়েবসাইট বানাতে হয়




ব্লগিং কি? কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়?


ব্লগিং কি?

সংক্ষিপ্ত কথায় বলতে গেলে অনলাইনে কোন কিছু পোস্ট করা বা অনলাইনে কোনোকিছু কে ধারাবাহিক ভাবে লিপিবদ্ধ করাকেই ব্লগিং(Blogging) বলে।

অন্যভাবে বলা যায়, ব্লগিং(Blogging) হচ্ছে একটি অনলাইন জার্নাল অথবা ইনফর্মেশনাল ওয়েবসাইট, যেখানে মানুষ বিভিন্ন টপিক সম্পর্কে বা বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে ইনফরমেশন দিয়ে থাকে।

কেন আপনি ব্লগিং করবেন?

আপনি যদি চাকরি অথবা পড়াশোনার পাশাপাশি প্যাসিভ ইনকাম খুজতে থাকেন তাহলে ব্লগিং(Blogging) হচ্ছে আপনার জন্য বেস্ট চয়েস। কেননা আপনি করে বসে

ব্লগিং(Blogging) থেকে মোটামুটি দুই তিন ঘন্টা কাজ করে ভালো একটা এমাউন্ট আয় করতে পারবেন।

কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়?

ব্লগিং(Blogging) থেকে তিন ভাবে আয় করা যায়, গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে, এফিলিয়েট মার্কেটিং( Affiliate Marketing) এর মাধ্যমে, আপনার যদি নিজের কোন পার্সোনাল প্রোডাক্ট থাকে সেগুলো আপনার ব্লগের (Blog) মাধ্যমে প্রমোশন করতে পারবেন এবং সেখান থেকে ভালো একটা লিড জেনারেট করতে পারবেন তবে বেশির ভাগ ব্লগার ওকে গুগল এডসেন্সের(Google AdSense) মাধ্যমে ইনকাম করে থাকে।

ব্লগিং শুরু করার পরিকল্পনা

ব্লগিং(Blogging)  শুরু করার তেমন কোনো প্রস্তুতি লাগেনা প্রয়োজন পড়ে না আমি মনে করিতবে হ্যাঁ ব্লগিং(Blogging) শুরু করার আগে আপনাকে কয়েকটি জিনিস অবশ্যই মনে রাখতে হবে

তাহলে চলুন এক নজরে দেখে নেই কোন বিষয়গুলো আপনাকে মাথায় রাখতে হবে-

  1. আপনি কোন বিষয়ে আর্টিকেল পাবলিশ করবেন আগে থেকে ঠিক করে নিন;
  2. সে অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইটকে ডিজাইন করুন অথবা সাজিয়ে নিন;
  3. আর্টিকেল লেখার সময় অবশ্যই অন্য কারো আর্টিকেল কপি করে লিখবেন না;
  4. আপনার আর্টিকেল এর মধ্যে যে ধরনের পিকচার গুলো ব্যবহার করবেন সেগুলো যেন ক্লিয়ার এবং ইউনিক দেখায়;
  5. ইমেজ ব্যবহারের সময় অল্টার টেক্সট(Alter Text), Image টাইটেল, Image ক্যাপশন ব্যবহার করা অত্যন্ত জরুরি;
  6. আর্টিকেল লেখার সময় অবশ্যই আর্টিকেল টাইটেল(Title), হেডিং(Heading), সাব -হেডিং(Sub-Heading), প্যারাগ্রাফ(Paragraph) এই HTML Tag গুলো থাকে;
  7. অবশ্যই আর্টিকেল লেখার সময় এক্সটার্নাল LINK ব্যবহার করবেন;

ব্লগিং শুরু করার জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করা

ব্লগিং(Blogging)  শুরু করার জন্য আপনি যদি ফ্রিতে কোন ওয়েবসাইট বানাতে চান তাহলে আমি সার্চ করব অবশ্যই আপনি গুগলের সাহায্য নিতে পারেন

কেননা গুগোল দিচ্ছে আপনাকে সম্পূর্ণ ফ্রি হোস্টিং এবং একটি SUB DOMAIN, পরবর্তীতে আপনি SUB DOMAIN মাস্টার ডোমেইনে কনভার্ট করে নিতে পারেনযদি একটি ব্লগার সাইট বানাতে চান তাহলে এই লিঙ্কে ক্লিক করতে পারেন BLOGGER.COM

ব্লগার এর ইন্টারফেসটি ব্যবহার করা অনেক সহজ এবং সহজে এডসেন্স APPROPVE হয়ে যায়

আপনি চাইলে ডোমেইন হোস্টিং কেনার পরে ওয়াডপ্রেস(WORDPRESS) সিএমএস ব্যবহার করে ও একটি ব্লগিং(Blogging) ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন

সে ক্ষেত্রে আপনাকে কিছু টাকা ইনভেস্ট করতে হবে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনতে হবে প্রয়োজনে থিম-Plugins কিনতে হবে

কিভাবে মানসম্মত আর্টিকেল লিখতে হবে?

কিভাবে হাই কোয়ালিটি আর্টিকেল কনটেন্ট লিখতে হয় আপনি কার জন্য লিখছেন সেই বিষয়টা জানা অত্যন্ত জরুরী আপনি কি বাচ্চাদের জন্য লিখছেন? আপনি কি মহিলাদের জন্য বা পুরুষদের জন্য লিখছেন? আপনি কোন ক্যাটাগরিতে লিখছেন বিষয়টা অবশ্যই আপনার মাথায় রাখতে হবে

আপনি যদি মানসম্মত আর্টিকেল লিখতে চান তাহলে নিচের কয়েকটি স্টেপ ফলো করুন-

  • আর্টিকেল এর টাইটেল সিলেকশন;
  • ওই টাইটেল টপিক নিয়ে ইন্টারনেটে রিসার্চ করা;
  • রিসার্চ-এর উপাত্ত গুলোকে এক জায়গায় সংগ্রহ করা;
  • পরবর্তীতে আর্টিকেল গুলোকে একটি ফরমেটে সাজানো;
  • আর্টিকেল এর জন্য ইমেজ কালেকশন অথবা ইমেজ ডিজাইন;
  • ইমেজ এর অফ-লাইন SEO করা;
  • পার্মালিংক এবং সার্চ ডিস্ক্রিপশন বসানো ;
  • সর্বশেষ <h1>,<h2>,<h3>,<h4>,<p> HTML Tag গুলো ব্যবহার করে আর্টিকেল পাবলিশ করা

গুগল এডসেন্স এর জন্য কি কি শর্ত রয়েছে?

গুগল অ্যাডসেন্স(Google AdSense) অ্যাপ্রুভাল পেতে আপনাকে বেশ কয়েকটি স্টেপ ফলো করতে হবে, আপনি চাইলে এই লিঙ্ক থেকে দেখে নিতে পারেন Google AdSense

  • গুগল এডসেন্স(Google AdSense) এর প্রথম শর্ত হচ্ছে আপনার একটি ভালো মানের ওয়েবসাইট থাকতে হবে;
  • ওয়েবসাইটে 1000 ওয়াট ওয়ার্ড এর 20 থেকে 30 টি পোস্ট থাকতে হবে,পোস্টগুলো হতে পারে বাংলা কিংবা ইংরেজিতে ;
  • ওয়েবসাইট ট্রাফিক থাকতে হবে অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইট প্রতিনিয়ত লোকজন যেন ভিজিট করে;
  • অন্যের আর্টিকেল কপি(Copy) করে পাবলিশিং করা যাবে না;
  • কপিরাইট রয়েছে এমন ইমেজ(Image) ব্যবহার করা যাবে না;
  • অবশ্যই আপনার বয়স 18 হতে হবে আর যদি 18 বছর না হয় তাহলে অভিভাবকের নামে গুগল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে গুগল এ্যাডসেন্স এপ্লাই করতে পারেন

আর ও আর্টিকেল পড়তে নিচের দেয়া LINK গুলো ভিজিট করতে পারেন !

বন্ধুরা এই ছিল ব্লগিং কি? কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়? নিয়ে আর্টিকেলআর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনার ভাল লাগে অবশ্যই আপনাদের বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট এ আপনার মতামত জানাতে পারেন। 

আমাদের সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post